Friday, 20 February 2015

স্বর্গে ফুটবল

ডেভিড বেকহ্যাম তার চার্চের প্যাস্টোর কে গিয়ে জিজ্ঞেস করলো, "ফাদার, আপনি কি বলতে পারেন যে স্বর্গে ফুটবল খেলা হয় কি?"
ফাদার বললেন, "হুম, সেটা তো ঠিক জানি না। তুমি একটা কাজ করো, কাল বিকেলের দিকে একবার এসো। আমি খোঁজখবর নিয়ে দেখছি।"

বেকহ্যাম পরদিন চার্চে গিয়ে বললো, "ফাদার কিছু জানতে পারলেন কি?"
ফাদার বললেন,

Thursday, 19 February 2015

কলে কতো করে

পল্টু উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়ে তার মাসির বাড়িতে বেড়াতে এলো। মাসি-মেসো থাকেন শ্যামবাজারে। এদিকে হয়েছে কি পল্টুর সিলেটি ছাড়া আর কোনও ভাষাই খুব ভালোভাবে বলতে পারে না।
তা মাসি ওকে বললেন, "পল্টুরে, একটু দোকান থেকে চিড়া, গোটা জিরা আর কলা নিয়ে আয় না।"
পল্টুবাবু তো গেলেন দোকানে। গিয়ে বললো, "দাদা চিড়া দিন না।"
দোকানদার উচ্চারণ শুনেই বুঝেছে যে শ্রীমান বাইরে থেকে এসেছে। তাই ও বললো, "আচ্ছা, চিড়ে চাইছেন তো?"

Wednesday, 18 February 2015

বনের রাজা কে

ঘুম থেকে উঠে সিংহ ভাবলো একটু রাজ্যপাট ঘুরে আসা যাক! যেমন ভাবনা, তেমনই কাজ।
একটু এগোনোর পর একটা চিতাকে দেখে তার দিকে এগিয়ে গিয়ে সিংহ, জিজ্ঞেস করল, "বনের রাজা কে?"
চিতার যেহেতু ঘাড়ে একটাই মাথা, তাই সে ঝটপট উত্তর দিলো, "কে আবার! আপনি।"
আরো একটু এগিয়ে বানরকে দেখে সিংহ একই প্রশ্ন করল, "এই ব্যাটা। বলতো বনের রাজা কে?"
বানরও কোন ঝামেলায় না গিয়ে বললো, "কে আবার! আপনিই হুজুর।"
চলার পথে বনের সব পশুকে একই প্রশ্ন জিজ্ঞেস করে সিংহ একই উত্তর পেল।

এবার মনের আনন্দে বাড়ি ফেরার পথে হঠাৎ

Sunday, 8 February 2015

পচাদার তাজমহল গড়া

পচাদার প্রেমিকা বললো, "হ্যাঁগো, তুমি আমাকে কতটুকু ভালোবাসো?"
পচাদা (একটু গম্ভীরভাবে), "সীমাহীন ভালোবাসি ...।"
প্রেমিকা (একটু নাক সিঁটকে), "সীমাহীন! আচ্ছা! তাহলে তাজমহল বানাচ্ছো না কেনো?"
পচাদা (আরো গম্ভীরভাবে)বলল,

Saturday, 7 February 2015

পচাদার বিয়ের রজতজয়ন্তী

পচাদার বিয়ের পঁচিশ বছর হয়ে গেলো। সবাই মিলে চাপাচাপি করাতে একটা বড়সড় গেট-টুগেদারেরও আয়োজন করা হল। কিন্তু অনুষ্ঠানে সবাই আনন্দ-হুল্লোড় করছে, আর পচাদা মনমরা হয়ে এককোনে চুপচাপ বসে রয়েছে।
পচাবৌদি এসে জিজ্ঞেস করলো, "কিগো, এতো মনমরা হয়ে বসে রয়েছো কেনো? পুরোনো দিনের কথা বুঝি মনে পড়ে যাচ্ছে?"

একটা দীর্ঘশ্বাস ফেলে পচাদা বললো,

Friday, 6 February 2015

রামের বিলাপ - রিমিক্স র‍্যাপ ভার্সন

বিলাপ করেন রাম, লক্ষণের আগে,
কোথা গেলো সীতা মোর, খেলো নাকি বাঘে।
কি করবো, কোথা যাব, লক্ষণ ভাই;
এখনি পুলিস ডাকো, ডাকো সিবিআই।
সকালে সীতার মুড ভালো ছিলো বেশ,
চেয়েছিল একখানি দামী নেকলেস।
কিন্তু আমি কিনে দিতে ভুলে গেছি হায়,

পচাদার বিবাহবার্ষিকী

পচাদা বিয়ে করেছে। তা বছরখানেক হতে চললো। পচাবৌদি বললো, "হ্যাঁগো, সব্বারই আজকাল গাড়ি আছে। তা, বিবাহবার্ষিকীতে তুমি আমায় একটা গাড়ি দেবে?"
পচাদা বললো, "দেখি!"

বিবাহবার্ষিকীর দিন। পচাদা বাড়ি ফিরলো হাতে একটা নেকলেসের বাক্স নিয়ে। বৌদিকে বললো, "ডার্লিং, এই দেখো তোমার জন্য কি এনেছি!"
বৌদি নেকলেসটা দেখে মনে মনে খুশী হল, কিন্তু মুখে বললো, "কিগো, তুমি না বলেছিলে যে আজকে একটা গাড়ি গিফট করবে?"
পচাদা বললো,

Thursday, 5 February 2015

এক লোক একটা অভিজাত


এক লোক একটা অভিজাত রেষ্টুরেন্ টে ঢুকে দেখল তিনটা দরজা

১ম দরজায় লিখা: চাইনিজ খাবার
২য় দরজায় লিখা:বাঙালী খাবার
৩য় দরজায় লিখা:ইংরেজ খাবার

লোকটি তার পছন্দ অনুযায়ী চাইনিজ খাবারের দরজায় ঢুকলে সেখানে আরোদুটি দরজা দেখতে পেলেন

১ম দরজায় লিখা: বাড়ি নিয়া খাইবেন
২য় দরজায় লিখা: হোটেলে খাইবেন

লোকটি হোটেলে খেতে চেয়েছিল তাইহোটেলে খাইবেন লিখা দরজায় ঢুকলে সেখানে আরো দুটি দরজা দেখতে পেলেন

Wednesday, 4 February 2015

রতনের ছিল চারটা ছেলে

রতনের ছিল চারটা ছেলে। ছেলেগুলোর
নামও ছিল আজব। পঁচা, বাসি, গন্ধ
আর মুইতা। একবার রতনের বন্ধু
বেড়াতে এলো বাড়িতে।
গ্রামে আসতে তার বন্ধুকে অনেক
পরিশ্রম করতে হয়েছে । বন্ধুর
অনেক
ক্ষুধা লাগলো এবং তাড়াতাড়ি খাবার
চাইল।

Tuesday, 3 February 2015

আসামীর স্বীকারোক্তি

এক পুলিশ অফিসার নতুন বিয়ে করেছেন। হানিমুনের পর অফিসার আবার চাকরিতে যোগ দিলেন। নতুন বউ খুব সোহাগ করে খাবার বানিয়ে বরের জন্য প্যাক করে দিলেন। দুপুরবেলা ভদ্রমহিলা ফোন করে বরের কাছে জানতে চাইলেন, "হ্যাঁগো, খাবারটা খেয়েছো? খেতে কেমন হয়েছে?"
পুলিস অফিসার আহ্লাদিত হয়ে বললেন,

Monday, 2 February 2015

স্বামী- স্ত্রী একসাথে বসে টিভিতে খেলা দেখতেছে.

স্বামী-
স্ত্রী একসাথে বসে টিভিতে খেলা দেখতেছে.
স্ত্রী : এইটা কি আফ্রিদি?
স্বামী : না, এইটা ক্রিস গেইল.
আফ্রিদি বল করতেছে.
স্ত্রী : এই দেখ আরেক টা উইকেট
পড়েছে.
স্বামী : এইটা আগের আউট-টার
রিপ্লাই.

ইতিহাস ক্লাশে স্যার ও নিশি

১৫৪২-১৬০৫
ইতিহাস ক্লাশে স্যার নিশিকে দাঁড়
করালেন-
বলো তো, আকবর জন্মেছিলেন কবে?’
নিশি : স্যার, এটা তো বইয়ে নেই!
স্যার : কে বলেছে বইয়ে নেই! এই
যে আকবরের