Wednesday, 30 July 2014

হর এক ফ্রেণ্ড জরুরি হোতা হ্যায়

পল্টু গতকাল বাড়ি ফিরতে অনেক রাত করে ফেলেছিলো। তাই ঘরে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গেই তার বাবার ফায়ারিং লাইনে বেচারা পড়ে গেলো!
পল্টুর বাবা খুব গম্ভীর হয়ে পল্টুকে জিজ্ঞেস করলেন, "এতো দেরী কেনো? কোন চুলোয় ছিলে এতক্ষণ?"
পল্টু, একটু মাথা চুলকে জবাব দিলো, "আমার বন্ধুর বাড়িতে ছিলাম।"

Tuesday, 29 July 2014

সান্টা সিং এর চীন ভ্রমণ

সান্টা সিং কয়েকদিন আগে চীনে বেড়াতে গেছিলো। সেখান থেকে অনেক শস্তার চীনা মাল নিয়ে ভাটিণ্ডাতে ফিরে এলো। কিন্তু একটা প্রশ্ন তার মনের মধ্যে অনেকক্ষণ ধরেই উঠছিলো।
শেষে আর থাকতে না পেরে সান্টা তার বউকে জিজ্ঞেস করলো, "ওয়ে প্রীতো, একটা কথা বলো তো দেখি। আমাকে কি দেখতে বিদেশীদের মতন লাগে?"

Monday, 28 July 2014

পচাদার ই-মেল

অফিসের কাজে পচাদা দিল্লীতে গিয়ে একটা হোটেলে উঠেছিলো। হোটেলের রুমে কম্পিউটার আর ইনটারনেটের কানেকশন পেয়ে পচাদা ভাবলো যে বউদিকে একটা ই-মেল করে সব কিছু জানিয়ে দেবে।
কিন্তু, লোকটা যেহেতু পচাদা, তাই ই-মেল করতে গিয়ে একটা ভুল এ্যাড্রেস বসিয়ে দিলো।

Sunday, 27 July 2014

চোর-পুলিশ

পথ সুরক্ষা সপ্তাহ চলাকালীন ট্রাফিক পুলিসের ইন্সপেকটর একটা গাড়ি থামিয়ে ড্রাইভারের আসনে বসা ভদ্রলোককে বললেন, "অভিনন্দন! এখন পথ সুরক্ষা সপ্তাহ চলছে, আর আপনিও সিটবেল্ট পরে গাড়ি চালাচ্ছেন। তাই আপনাকে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে পাঁচ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হলো। তা আপনি এই পুরস্কারের টাকা দিয়ে কি করবেন?"
ড্রাইভার, "এই টাকা দিয়ে আমি নিজের ড্রাইভিং লাইসেন্সটা বানিয়ে নেবো!"
পেছনের সিটে বসে থাকা তার মা সঙ্গে সঙ্গে বললেন,

হরি ওম

একদিন কয়েকজন সাধু একসঙ্গে মন্দিরে যাচ্ছিলেন।
সাধুদের মধ্যে একজন বললেন, "দেখো, রাস্তায় অনেক মেয়ে দেখতে পাবে। কোন মেয়ে যদি কারো চোখে পড়ে, তাহলে সাথে সাথে, হরি ওম বলে নাম জপ করবে। দেখবে চিত্ত চঞ্চল হবে না।"
সাধুরা মন্দিরের উদ্দেশ্যে এরপর রওয়ানা দিলেন।
কিছক্ষণ পরে হঠাৎ এক সাধু বললেন,

পচাদার ডেঙ্গু হলো

আমাদের পচাদার হঠাৎ করে ডেঙ্গু হয়ে গেলো। তা ডেঙ্গু হঠাৎই হয়, সেটা কোন ব্যাপার নয়, কিন্তু গোলমালটা বাঁধলো পচাদা ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পর।
ডাক্তারবাবু জিজ্ঞেস করলেন, "কি হয়েছে আপনার?"
পচাদা, "আর বলবেন না, শরীর খুবই খারাপ।

কনে বিদায়ে বরের গালে চড়

বিয়ের পর, কনের বিদায়ের সময় হঠাৎ করে বরের মোবাইল ফোনটা বেজে উঠলো। আর সাথে সাথেই কনের সপাট চড় বরের গালে আছড়ে পড়লো।
ভাবছেন কেনো?
মোবাইলের রিংটোন ছিলো একটা হিন্দি গান,

পচাদার বক্তৃতা আত্মহত্যা

একবার পাড়ার এক অনুষ্ঠানে পচাদাকে আত্মহত্যা সম্পর্কে কিছু বলতে বলা হয়েছিলো। সেই পচাদার শেষ বক্তৃতা।
পচাদা ভাষণ দিচ্ছে, "বন্ধুগণ, আত্মহত্যা হচ্ছে এমন একটা খারাপ জিনিস যেটা করলে আপনার নিজেকে ক্ষতি করা হয়। আত্মহত্যা

Thursday, 24 July 2014

একটা বেজন্মাই যথেষ্ঠ

এক পুলিশ ছুটিতে বেড়াতে গেছে দূরে এক পল্লী গাঁয়ে।
সেখানে কয়েকদিন কাটানোর পরই স্থানীয় স্কুলমাস্টারের মেয়ের প্রেমে পড়ে গেলো সে। তাদের প্রেম বেশ ঘন হয়ে উঠেছে, এমন সময় তার ছুটি শেষ হয়ে গেলো, শহরে ফিরে এলো সে।

ট্রাফিক সিগন্যাল

এক মহিলা ট্রাফিক সিগন্যাল ভঙ্গ করে গাড়ি নিয়ে সরে পড়তে চেষ্টা করছিলেন।
পুলিশ হুইসেল বাজিয়ে বললো, "থামুন!"
মহিলা পুলিশকে অনুরোধ করলেন,

Wednesday, 23 July 2014

দেরীতে এসেছ কেন

টিচার, "তুমি দেরীতে এসেছ কেন?"
ছাত্র, "স্যার, বাবা মা ঝগড়া করছিলো।"
টিচার,

আমিও যে মারা যাব

পচাদা আর পচাবৌদির মধ্যে ঝগড়া হচ্ছিলো।
হঠাৎ করে পচাবৌদি ইমোশনাল হয়ে পড়লো।
বেশ একটু ভারী গলায় বৌদি পচাদাকে বললো, "কখনো ভেবে দেখেছ, আমি একদিন মরে যাব।"
পচাদা জোর গলায় বললো,

Tuesday, 22 July 2014

আমি মা হতে চলেছি,

মেয়ে : আমি মা হতে চলেছি,
মা : হারামজাদি, কোথায় গেছিলি বংশের মুখ কালো করার জন্য ? কার পাপ পেটে করে নিয়ে আসছস?? পড়ালেখার বয়সে কার সাথে আয়েস করে তোর বাপের মুখ উজ্জ্বল করছস??
কার সাথে মাস্তি করে এই পাপ ঘরে নিয়ে আসছস?

জেলার ও কয়েদি

এক জেলখানায় জেলার কয়েদিকে তার ফাসির ঘোষনা সোনাতে এসে
জেলারঃ কাল সকাল পাঁচটার সময় তোমার ফাসি হবে।
কয়েদি হাঃ হাঃ হাঃ করে হাসতে লাগল।
জেলারঃ হাসছো কেন?

Monday, 21 July 2014

জুয়েলারির দোকান

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ফোনে কথা হচ্ছে।
স্ত্রী (ধমকের স্বরে), "কোথায় তুমি?"
স্বামী, "প্রিয়তমা, তোমার কি সেই জুয়েলারির দোকানটার কথা মনে আছে, যে দোকানের একটা গয়নার সেট তুমি পছন্দ করেছিলে এবং বলছিলে,

গাড়ি পার্কিং

এক ভদ্রলোক এসে পুলিশকে জিজ্ঞেস করলেন, "দাদা, আমি কি এখানে গাড়িটা পার্ক করতে পারি?"
পুলিশ ভদ্রলোক খুব গম্ভীরভাবে ছোট্ট জবাব দিলেন, "না।"
ভদ্রলোক, ওখানে পার্ক করা বেশ কয়েকটা গাড়ি দেখিয়ে বললেন,

Friday, 18 July 2014

পাবলিক বাস আর ট্যাক্সির ফারাক

যাত্রীছাউনিতে বসে যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করছে এক প্রেমিক। পাশেই বসে আছে তার প্রেমিকা। প্রেমিক তার চেহারায় গুরুগম্ভীর ভাব এনে বলল, মিতু, তোমাকে একটা কথা জিজ্ঞেস করি। খুবই গুরুত্বপূর্ণ কথা।
প্রেমিকা ধরে নিল, এখন খুবই দার্শনিক টাইপের একটা কথা হবে। তাই সে সিরিয়াসলি বলল, হ্যাঁ, বলো। প্রেমিক বলতে শুরু করল,

গবেটের সঙ্গে জীবন কাটাবে

মেয়ের প্রেমিকের উদ্দেশ্যে বাবা বললেন, আমার মেয়ে একটা গবেটের সঙ্গে তার জীবনটা কাটাবে এ আমি কিছুতেই হতে দিতে পারি না।
প্রেমিক বলল,

Thursday, 17 July 2014

মিস কিছুই জানেন না

আমাদের পল্টু যখন ছোট ছিলো, তখন থেকেই তার নখরাবাজিতে সব্বাই অস্থির।
একদিন হয়েছে কি, পল্টু স্কুল থেকে ফিরে এসেই তার মার কাছে ঘোষণা করলো, "মা, আমি কাল থেকে আর স্কুলে যাবো না।"
পল্টুর মা অবাক হয়ে জিজ্ঞেস করলেন, "সেকিরে, কেনো যাবিনা?"
পল্টু বললো, "দেখো মা, আমাদের স্কুলের মিস নিজেই কিচ্ছুটি জানে না। তাই স্কুলে গিয়ে কি শিখবো?"
মা বললেন, "তুই কি করে বুঝলি যে মিস কিছুই জানেন না?"
পল্টু খুব কনফিডেন্টলি বললো,

কথায় কথা বাড়ে

পচাদা পাবলিক টয়লেটে বসে একটু হালকা হচ্ছিলো। হঠাৎ করে পাশের টয়লেট থেকে কথা ভেসে এলো, "কি দাদা, কেমন আছেন?"
পচাদা খুবই অবাক হয়ে বলল, "এইতো, আমি মোটামুটি ভালোই আছি।"
কথার পিঠে আবার কথা ভেসে এলো, "তা এখন কি করছেন?"
পচাদা চিন্তিত হয়ে উত্তর দিল, "এইতো ভাই, কমোড এ বসে আছি।"
পাশের টয়লেট থেকে লোকটা আবারও বললো,

বাড়ি চলে যান, মেশিন নষ্ট হয়ে গেছে

পল্টু বেচারা গরমে কাহিল হয়ে গেছে। আর জল কম খাওয়ায় ওর প্রস্রাবও ঠিকমতো হচ্ছে না। শেষে পল্টু এক ডাক্তারের কাছে গেলো।
পল্টু ডাক্তারের চেম্বারে ঢুকে বললো, "ডাক্তার সাহেব, আমার প্রস্রাবে প্রচণ্ড জ্বালাপোড়া হচ্ছে। আর পরিমাণেও কম হচ্ছে।"
ডাক্তার পল্টুর দিকে তাকিয়ে বললেন, "বাড়ি চলে যান, বাড়ি চলে যান। মেশিন নষ্ট হয়ে গেছে।"
এই শুনে পল্টুর তো হয়ে গেছে। খুব ঘাবড়ে গিয়ে সে ডাক্তারকে বললো,

Wednesday, 16 July 2014

পচাদার ছোট ভাইয়ের সুখবর

পচাদার ছোটভাই রাজীবদা দু-বছর হল বিয়ে করেছে। রাজীবদা অনেক বছর ধরেই ব্যাঙ্গালোর প্রবাসী।
তো একদিন রাজীবদা কোন খবর না দিয়ে হঠাৎ করে কলকাতায় হাজির। বাড়িতে ঢুকেই রাজীবদা তার মাকে গিয়ে বলছে, "মা, একটা সুখবর আছে! আমরা দুজন থেকে তিন জন হয়ে গেছি।"
মা খুব খুশী হয়ে বললেন,

দোকানদারের পরামর্শ

পচাদার ভীষণ শরীর খারাপ। তো সবাই মিলে ঠেলেঠুলে একজন বড় স্পেশ্যালিস্ট ডাক্তারের কাছে পচাদাকে পাঠানো হলো।
ডাক্তার বাবু বেশ কিছুক্ষণ ধরে পচাদাকে ভালোভাবে দেখেটেখে বললেন, "হুমম! কেসটা বেশ সিরিয়াস বাঁধিয়েছেন দেখছি। তা এর আগে কারো কাছে গেছিলেন নাকি?"
পচাদা, "হ্যাঁ! ঐতো, আমাদের পাড়ার ঔষধের দোকান আছে, ওখানে গিয়েছিলাম।"
ডাক্তার বাবু এবার একটু বিরক্ত হয়েই বললেন, "ঐ তো ভুল করেন! কেন যে ঔষধের দোকানে যান! আরে

Tuesday, 15 July 2014

স্ত্রীকে সত্যি কথা না বললে

পচাদার মেজোমামার নাম হরিদাস, আর পদবী পাল। একদম যাকে বলে হরিদাস পাল! তা মামা লোকটা বেশ মোটাসোটা আর হেবভি মোটা মাইনের সরকারী চাকরীও করে। মামী আবার দেখতে মামার উলটো, স্লিম, ফরসা আর সুন্দরী।
তো একদিন মামী হরিদাস পাল মামাকে ফোন করলো। মামা তখন অফিসের মিটিং এ ব্যস্ত।
মামী, "অ্যাই তুমি কখন বাড়ি ফিরবে গো?"
মামা, "শোন আমি রাত দশটার আগে বাড়ি ফিরতে পারবো বলে মনে হয় না।"
তো মামা হঠাৎ বিকাল ৫টার সময় বাড়ি ফিরে দেখলো

Monday, 14 July 2014

বিয়ে করতে পারবো না গো

পচাদার বন্ধু রঞ্জনদা। সে মোটামুটি বড় দরের অফিসার। আর বাড়িতে বৌ-বাচ্চা রেখে আরেকটা মেয়ে, যার নাম পল্লবী, তার সঙ্গে বেশ আশনাই চালিয়ে যাচ্ছিলো। দুর্ভাগ্যবশতঃ হঠাৎ করে তার বৌ এর চোখে দুজনে ধরা পড়ে যায়। তারপর বউ রঞ্জনকে আল্টিমেটাম দেয়, হয় ঐ মেয়েটাকে ছাড়ো, নাহলে ৪৯৮!
রঞ্জনদা পরদিন পল্লবীর সাথে দেখা করে বললো, "পল্লবী, তোমার সাথে আমার সম্পর্কটা আজকেই শেষ। আমি তোমায় বিয়ে করতে পারবো না।"
পল্লবী বেশ কিছুটা রেগে গিয়ে বললো,

Sunday, 13 July 2014

হাড়কেপ্পন বলে বিরাট দুর্নাম

আমাদের পাশের গলির সুবোধবাবুর হাড়কেপ্পন বলে বিরাট দুর্নাম আছে। দুষ্টু লোকে বলে যে সকালে সুবোধবাবুর মুখ দেখলে নাকি সারা দিন আর খাওয়া জুটে না। সেই সুবোধবাবুর একটাই ছেলে, সমীর।
সমীর তার বাবাকে একদিন বললো, "বাবা, আমি দূরের জিনিস দেখতে পাচ্ছি না। আমাকে একটা চশমা বানিয়ে দাও।"
সুবোধ, আকাশের দিকে তাকিয়ে, "বল তো ওটা কি?"

হৃদয় মন্দির

কলেজ ফেরতা অণিমাকে দেখে রাস্তার এক চ্যাংড়া ছোঁড়া বললো, "হে সুন্দরী, এসো, টুক করে আমার হৃদয়ে ঢুকে পড়ো।"
অণিমা বললো, "জুতো খুলবো?"
ছেলেটা একগাল হেসে বললো,

কাকীমা কানে বোধহয় ঠিক শুনতে পাচ্ছেন না

আমাদের পাড়ার হরিকাকুর কিছুদিন থেকে মনে হচ্ছে যে কাকীমা কানে বোধহয় ঠিক শুনতে পাচ্ছেন না। ওদিকে কাকীমার ধারণা তিনি ঠিকই আছেন, আর তাই ডাক্তারের কাছে যেতেও রাজি নন। তো শেষপর্যন্ত হরিকাকু ডাক্তারকে বাড়িতেই কল দিয়ে নিয়ে এলেন।
কাকীমাকে ডাকতে গিয়ে হরিকাকু দেখলেন যে তিনি রান্নাঘরে মাছ ভাজছেন।
হরিকাকু একটু গলা তুলে হাঁক দিলেন, "শুনছো, কি মাছ রান্না করছো?"
কাকীমা নিরুত্তর।
হরিকাকু আরেকটু এগিয়ে গিয়ে আবার বললেন

Saturday, 12 July 2014

লোকে কি কি কারনের জন্য সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়

আমাদের স্কুলের সিনিয়র রাজাদা এনডিএ থেকে আর্মির অফিসার হয়ে বেরিয়েছে। ছুটি-ছাটায় বাড়ি এলে রাজাদার সঙ্গে আমাদের জোর আড্ডা হয়। তা এইবার রাজাদা আড্ডায় এসে বললো যে একটা জব্বর ঘটনা ঘটেছে। রাজাদার কথায়ই বাকিটা শোনা যায়।
রাজাদা, "আমার কোম্পানিতে দুজন নতুন জওয়ান যোগ দিয়েছে। একদিন আমি ছাউনির ভেতরেই হেঁটে যাচ্ছি, হঠাৎ করে এই দুজনের কথাকানে এলো।
প্রথম জওয়ান,

Friday, 11 July 2014

গণৎকারের গণনা

জীবনবাবু খবরের কাগজে বিজ্ঞাপন দেখে এক অতি জাগ্রত গণৎকারের কাছে হাত দেখাতে গেলেন।
ভদ্রলোক খুব মন দিয়ে জীবনবাবুর হাতটা দেখে বললেন, "আপনার এক ছেলে ও এক মেয়ে।"
জীবনবাবু বেজায় চটে গিয়ে বললেন, "ধুর মশাই! মোটেও না, ডাহা ভুল। আমার তিন

আমি কিন্তু জানি যে তুমি কি করেছো

আমাদের পাশের বাড়ির বাচ্চাটার ডাকনাম হুলো। কিন্তু সে ম্যাঁও-ম্যাঁও মোটেই করে না। এদিকে তার আবার আঙুল চোষার বদভ্যাস আছে।
অনেক চেষ্টা করেও হুলোর আঙুল চোষা বন্ধ না করতে পেরে তার মা বললেন,

পচাদার SWOT এ্যানালাইসিস

আমাদের পচাদা কদিন ধরে এম বি এ করছে। হঠাৎ করে আজকাল তার মুখ দিয়ে বেশ ম্যানেজমেন্টের ফাণ্ডা বেরিয়ে পড়ে।
গত রোববারে পাড়ার রাস্তার মোড়ে দাঁড়িয়ে পচাদা আমাকে বললো, "জানিস রে, প্রত্যেকটা লোকের নিজের সম্বন্ধে একটা SWOT এ্যানালাইসিস করে নেওয়া উচিত।"
আমি একটু অবাক হয়ে বললাম, "মানেটা কি পচাদা? সোয়াট তো পাকিস্তানের কোন এক রাজ্য বলেই জানতাম!"
পচাদা একটু চাচ্ছিল্যের হাসি হেসে বললো,

Thursday, 10 July 2014

অন্য কথা বলো

মেঘনার প্রেমিক রাহুল প্রচণ্ডভাবে ওয়ার্ক্যাহলিক।
এই নিয়ে মেঘনার দুশ্চিন্তার সীমা নেই।
রাহুলের ঘ্যানঘ্যান শুনে প্রচণ্ড চটে গিয়ে মেঘনা একদিন বললো,
"দেখ রাহুল, সবসময় তোর অফিসের গল্প শুনতে আমার ভালো লাগে না। অন্য কিছু নিয়ে কথা বল।

আপনার জন্য একটা সুখবর আছে

ডাক্তার তাঁর পেশেন্ট ভদ্রমহিলাকে খুব উচ্ছসিত হয়ে বললেন,
"মিসেস ঘোষ, আপনার জন্য একটা সুখবর আছে!"
মিসেস ঘোষ নামের পেশেন্ট একটু অবাক হয়ে বললেন,
"ডাক্তারবাবু আপনার বোধহয়

Tuesday, 8 July 2014

কে বলল, আমি স্বর্গে আছি

ডাকসাইটে এক বিধবা মহিলা প্ল্যানচেটে তাঁর স্বামীর আত্মাকে ডেকে আনল।
- কি গো, ওখানে তোমার দিনকাল কেমন কাটছে?
- চমৎকার।
- এখানে যেমন ছিল, তার চেয়েও অনেক ভালো?
- অ-নে-ক ভালো।
- বল না গো,

এজন্যই এটা নরক

খুব দামি একটা জাগুয়ার স্পোর্টস কার নিয়ে এক লোক স্বর্গের দরজায় গিয়ে হাজির।
- কী ব্যাপার? স্বর্গের দ্বাররক্ষী তাকে আটকালো।
- দেখছ না কী দামি গাড়ি? এই গাড়ি স্বর্গের সড়কে চালিয়ে দেখতে চাই একবার।
- নিয়ম নেই। তুমি নরকে গিয়ে চেষ্টা করে দেখ।
(হতাশ লোকটি এবার গেল নরকের দরজায়। এখানেও দ্বাররক্ষী আটকালো। )
- কী ব্যাপার?
- নরকের রাস্তায় এই গাড়িটা চালাতে চাই।
- সম্ভব নয়।
- কেন?
- কারণ হল

Monday, 7 July 2014

বুড়ি হয়ে যাবেন

একবার এক অভীনেতৃ এক পরিচালকের কাছে কাজ চাইতে গেলে
পরিচালক বললঃ আপাতত আপনাকে কোনো রোল দিতে পারছি না।
আমাদের যখন কোনো বুড়ি চরিত্রাভিনেত্রীর দরকার হবে তখন আপনাকে আমরা ডাকব।
অভিনেত্রীঃ কিন্তু আমি তো বুড়ি নই, তরুণী।
পরিচালকঃ

Sunday, 6 July 2014

দুটো আলাদা বিল নিয়ে এস

একবার দুই প্রেমিক-প্রেমিকা হোটেলে বসে খাচ্ছে। প্রচুর খাবারের অর্ডার দেওয়া হয়েছে।
প্রেমিকঃ তা হলে তুমি আমাকে বিয়ে করবে না বলে ঠিক করেছ?
প্রেমিকাঃ হ্যাঁ, আমি তোমাকে

Saturday, 5 July 2014

আমার প্রতিদান পাওয়া হয়ে যায়

একটা অ্যাক্সিডেন্টে ভয়ানকভাবে পুড়ে গেছেন এক সুন্দরী মহিলা। সারা শরীর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তাঁর, কিন্তু সবচে বাজে অবস্থা মুখের। ডাক্তার মহিলার স্বামীকে জানালেন, কসমেটিক সার্জারি করতে হবে। অন্য কোথাও থেকে চামড়া এনে মহিলার মুখে বসাতে হবে। মহিলার নিজের শরীরের চামড়া এ অবস্থায় সরানো সম্ভব নয়, সমস্যা হতে পারে।
স্বামী ভদ্রলোক তখন তাঁর শরীর থেকে চামড়া নেয়ার প্রস্তাব দিলেন। ডাক্তার রাজি হলেন, এবং

Friday, 4 July 2014

বিয়ে করতে কত টাকা খরচ হয়

আমাদের পল্টু যখন ক্লাস ফাইভে পড়তো, তাদের পাড়াতে একটা বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠান হচ্ছিল। সে তার বাবার কাছে গিয়ে হঠাৎ জিজ্ঞেস করলো,
"বাবা, বিয়ে করতে কত টাকা খরচ হয়?"
পল্টুর বাবা, যিনি খুব অমায়িক ভদ্রলোক, তিনি বললেন,

Thursday, 3 July 2014

সান্টা সিং এর মেয়ে

একজোড়া প্রেমিক-প্রেমিকা রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলো।
হঠাৎ একটা দশতলা বাড়ির ছাদে এক সর্দারকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে ছেলেটা বললো, "একটা মজার জিনিস দেখবে? ঐ ওপরে দেখো সর্দার দাঁড়িয়ে আছে। ওকে খ্যাপাচ্ছি দেখো!"
ই বলেই ছেলেট ওপরে সর্দারের দিকে তাকিয়ে বললো, "ওয়ে সান্টা সিং, দেখো, আমি তোমার মেয়েকে ভাগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি।"
সর্দার এই কথা শুনেই রেগে গিয়ে বললো, "ওয়ে, তেরী তো! তু আবভি রুক জা, ওয়ারনা বহুত পছতায়েগা।"

Wednesday, 2 July 2014

পচাদার আদর্শ মুড

পচাদার তখন নতুন নতুন বিয়ে হয়েছে। একজন স্পেশ্যালিস্ট ডাক্তারের কাছে যুগলে গেছে।
ডাক্তার নবদম্পতিকে বললেন, "দেখুন, সেক্স করার জন্য নিজের আদর্শ মুড পরস্পরকে বোঝানো খুবই দরকার। এর ওপর দাম্পত্য জীবনের খুশী অনেকটা নির্ভর করে।"
বাড়ি ফিরে পচাবৌদি পচাদাকে বললো, "শোনো, অফিস থেকে বাড়ি ফিরে তুমি যদি দ্যাখো যে আমার চুল খুব পরিপাটি করে বাঁধা, তখন বুঝবে আমার ইচ্ছে করছে না। যদি দ্যাখো যে আমার চুল আলগা করে বাঁধা, তাহলে বুঝবে যে আমার ইচ্ছে হলেও হতে পারে। আর যেদিন দ্যাখবে আমার চুল খোলা, সেদিন বুঝবে যে আমার প্রচণ্ড ইচ্ছে করছে।"
পচাদা এই শুনে বললো,

Tuesday, 1 July 2014

পুরোটাই প্রাকটিক্যাল

এক ভদ্রলোক জুয়েলারির দোকানে গিয়ে প্রেমিকাকে উপহার দেওয়ার জন্য সবচেয়ে দামি ব্রেসলেট চাইলেন।
দোকানদার বললেনঃ‘স্যার, ব্রেসলেটে কি আপনার প্রেমিকার নাম খোদাই করে নেবেন?’
ভদ্রলোক কিছুক্ষণ চিন্তা করে বললেনঃ ‘না, তার দরকার নেই। তার চেয়ে বরং লিখে দেন, তুমিই আমার প্রথম এবং একমাত্র প্রেম।’
দোকানদার বললেনঃ